Server sync... Block time in database: 1615391772, server time: 1664400618, offset: 49008846

Steem Bangladesh Contest || Health || 28th February 2022 Eng.


হেলো বন্ধুরা আশা করি সকলে ভালো আছেন,আমিও ভালো আছি,আজকে আমি স্টিম বাংলাদেশ আয়োজিত হেলথ কনটেস্টে অংশগ্রহণ করতেছি।


স্বাস্থ্য



হৃদরোগ

istockphoto-1293132839-612x612.jpg

Images Source



হার্ট অ্যাটাক হচ্ছে এক নম্বর মরণব্যাধি,প্রতিবছর বিশ্বে অনেক মানুষ হার্ট অ্যাটাক করে মারা যায়।এদের বেশির ভাগই নিম্ন ও মধ্যবিত্ত পরিবারের।একবার হলে 40 ভাগ রোগী হাসপাতালে নেওয়ার আগেই মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়ে। তাই সঠিক সময়ে রোগী হাসপাতালে নিয়ে আসতে হবে খুব দ্রুত সময়ের মধ্যে হাসপাতালে নিয়ে আসলে উন্নত চিকিৎসার মাধ্যমে রোগীকে বাঁচানো সম্ভব হয়।তবে একটি কথা বলা যায় যে, প্রতিকারের চেয়ে প্রতিরোধই উত্তম তাই আগেই রোগ নির্ণয় করে ডাক্তারের শরণাপন্ন হতে হবে,তাহলে সহজেই রোগ নিয়ন্ত্রণ করা যায়।



হার্ট অ্যাটাকের কারণ

cigarette-110849_640.webp

Images Source



পারিবারিক ইতিহাস,অতিরিক্ত ধূমপান,মদ্যপান,অতিরিক্ত লবণ গ্রহণ,অতিরিক্ত টেনশন, অতিরিক্ত ওজন, অনিয়ন্ত্রিত খাদ্যাভাস,উচ্চ রক্তচাপ, ডায়াবেটিস।



হার্ট সুস্থ রাখার উপায়

istockphoto-1296507353-612x612.jpg

Images Source



হৃদপিণ্ড মানুষের জীবনের একটি বিশেষ গুরুত্বপূর্ণ অংশ হার্ট সুস্থ না থাকলে মানবজীবন সুস্থ থাকে না, একটি সুস্থ হার্ট একটি সুস্থ জীবন তাই আমাদের হার্টকে ভালো রাখতে হবে। আমি নিচে কিছু হার্ট সুস্থ রাখার কৌশল তুলে ধরলাম।

  • হার্ট সুস্থ রাখতে গেলে ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণে রাখতে হবে মনে রাখতে হবে ডায়াবেটিস সকল রোগের প্রধান কারণ সে ক্ষেত্রে হার্ট সুস্থ রাখতে গেলে আমাদের অবশ্যই ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণে আছে কিনা তা যাচাই করে নিয়ন্ত্রণে নিয়ে আসতে হবে।
  • উচ্চ রক্তচাপ হৃদরোগের আরেকটি অন্যতম কারণ হৃদপিণ্ড সুস্থ রাখতে হলে উচ্চরক্তচাপ অবশ্যই নিয়ন্ত্রণে রাখতে হবে । আমাদের নিয়মিত ডাক্তারের কাছে গিয়ে রক্তচাপ পরীক্ষা করতে হবে যত তাড়াতাড়ি রক্তচাপ বেশি বুঝতে পারব ততো সহজে অন্য বড় ধরনের রোগ থেকে মুক্তি পাওয়া যাবে।
  • ধূমপান থেকে বিরত থাকতে হবে ধূমপানের ফলে হৃদরোগের ঝুঁকি বেড়ে যায় নিজে ধূমপান না করলেও কেউ ধূমপান করলে সেখানে থাকা যাবে না।
  • অতিরিক্ত মদ্যপান থেকে বিরত থাকতে হবে, মদে থাকায় অ্যালকোহল মানব শরীরের জন্য ক্ষতি ক্ষতিকর।
  • অতিরিক্ত লবণ ব্যবহার পরিহার করতে হবে অতিরিক্ত লবন ব্যবহারের ফলে শরীরে সোডিয়ামের মাত্রা বেড়ে যায় এবং উচ্চ রক্তচাপ তৈরি হয় এর ফলে হার্টের অসুখ দেখা দেয়।
  • অতিরিক্ত ওজনের ফলে হার্টের অসুখ দেখা দিতে পারে তাই আমাদের ওজন নিয়ন্ত্রণে রাখতে হবে মনে রাখতে হবে অতিরিক্ত ওজন মানে অতিরিক্ত রোগ।
  • মানসিক চাপ থেকে মুক্ত থাকতে হবে মানসিক চাপের ফলে আমাদের শরীরে বিভিন্ন ধরনের রোগ বাসা বাঁধে তাই আমাদের মানসিক চাপ ছাড়া জীবন যাপন করতে হবে।
  • হার্টকে সুস্থ রাখতে আমাদের নিয়মিত ব্যায়াম করতে হবে আমরা যদি প্রতিদিন 30 মিনিট হেঁটে ব্যায়াম করি তাহলে শরীর ভালো থাকবে এছাড়াও আমরা বিভিন্ন ধরনের খেলাধুলা করে শরীরকে ফিট রাখতে পারি খেলাধুলা করলে একটু ভালো ব্যায়াম এর কাজ হয়।
  • চর্বিযুক্ত খাবার পরিহার করতে হবে যে সকল খাবারে অতিরিক্ত চর্বি থাকে যেমন গরুর মাংস খাসির মাংস যেসব খাবার পরিহার করতে হবে এছাড়াও রান্নার কাজে ব্যবহৃত আমাজে তেল ব্যবহার করি তার পরিমাণ কমিয়ে দিতে হবে।
  • ফাস্টফুডকে না বলতে হবে বর্তমান যুগে ফাস্টফুডের দোকান যেখানে সেখানে দেখা যায় এসকল ফাস্টফুড মানব শরীরের জন্য খুবই ক্ষতিকর ফাস্টফুডে থাকা অতিরিক্ত তেল হার্টের রোগের জন্য অন্যতম কারণ তাই আমাদের ফাস্টফুডকে পরিহার করতে হবে।


family-3501026_640.jpg

Images Source

পরিশেষে এটাই বলা যায় যে একটি সুস্থ হার্ট মানে একটি সুস্থ জীবন। উপরের নিয়মগুলো মেনে চললে আশা করা যায় হাটের বড় কোনো অসুখ হবে না তাই আমরা চেষ্টা করব উপরোক্ত নিয়ম গুলি মেনে চলার।

আমি @avibauza @maulidar এই দু'জনকে এই কনটেন্টটিতে অংশগ্রহণ করার জন্য বিশেষভাবে আমন্ত্রণ জানাচ্ছি।

ধন্যবাদ সবাইকে


Comments 3